Tuesday , 19 October 2021
Home / খবর / কেন মানবজাতি বারে বারে ছুটেছে চাঁদের দিকে?

কেন মানবজাতি বারে বারে ছুটেছে চাঁদের দিকে?


চাঁদ নিয়ে মানুষের সীমাহীন গবেষণার শেষ নেই। সেই যাত্রা শুরু হয়েছিল লুনা ১। সোভিয়েতের প্রচেষ্টা। সময়টা ১৯৫৯ সালের জানুয়ারি। সে সময় পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণ পেরিয়ে প্রথম কোনও মহাকাশযান পাড়ি দেয় মহাকাশে। এবং চাঁদের ৪০০০ মাইলের মধ্যে পৌঁছে যায়।

এরপর ১৯৬৯ সালের ২০ জুলাই অবশ্য ইতিহাস তৈরি হয়। Neil Armstrong এবং Edwin ‘Buzz’ Aldrin চাঁদের মাটি ছোঁয়।

Armstrong চাঁদের মাটিতে নিজের জুতোর দাগ রেখে সেই ঐতিহাসিক কথাটা বলেছিলেন– এটা ‘one small step for a man, one giant leap for mankind’।

নাসার অ্য়াপোলো প্রোগ্রামের মাধ্যমে ছ’বার চন্দ্রাভিযান হয়েছে। ১৯৬৯ সালে ছিল এর প্রথম অভিযান। আর্মস্ট্রং এবং এডুইন ছাড়াও ওই অভিযানের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন চার্লস কনরাড।

যুক্ত ছিলেন অ্যালান বিন, এডগার মিচেল, ডেভিড স্কট, জেমস আরউইন, জন ইয়ুংসহ অনেকে।

চাঁদ নিয়ে মানুষের কৌতূহল উত্তরোত্তর বৃদ্ধিই পাচ্ছে। নতুন তথ্য আরও অজানা নতুন তথ্যের সন্ধানে মানুষকে ঠেলে দিয়েছে। চন্দ্রাভিযানের তাই নানা প্রস্তুতি মানুষ নিয়েছে।

সম্প্রতি নাসা এক ব্যতিক্রমী পরিকল্পনা করেছে। অচিরেই তারা চাঁদে নিয়ে যাবে প্রথম কোনও কৃষ্ণাঙ্গ মানুষকে; নিয়ে যাবে প্রথম কোনও মহিলাকেও।

NASA-র Apollo project-এর অন্তর্গত Artemis program-য়ের অংশ হিসাবে এই কাজ করা হবে। ২০২৪ সাল নাগাদ এই বিরল কাজটি সম্পন্ন করা যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সূত্র: বিনোদন২৪.কম





web hit counter