Wednesday , 30 November 2022
Home / খবর / চমক নিয়ে চঞ্চল

চমক নিয়ে চঞ্চল


শোবিজের অন্যতম মুখ চঞ্চল চৌধুরী। চঞ্চল অভিনীত ‘ডার্ক রুম’ নামের একটি ওয়েব কনটেন্ট ট্রেইলার লাইভটেকের সিনেম্যাটিকে অবমুক্ত হয়েছে গতকাল। নির্মাতা গোলাম সোহরাব দোদুল।

এখানে চঞ্চল চৌধুরীকে বৃদ্ধ লুকসহ নানামাত্রিক চরিত্রে দেখা যায়। তার সঙ্গে রয়েছেন আজমেরী হক বাঁধন, তারিন জাহান, আরেফিন জিলানীসহ অনেকেই।

ওয়েব ফিল্মটি নিয়ে চঞ্চল লিখেছেন, `যে কোন চরিত্রের লুক বা গেট আপ, অভিনয়ের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা বিষয়। লুকটা যদি ঠিক ঠাক হয়, আর অভিনয় টা যদি লুকের সঙ্গে খাপ খেয়ে যায়, তাহলেই চরিত্রটাকে দর্শক বিশ্বাস করে। আমাদের খুবই দূর্ভাগ্য আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে কয়েকটা সেক্টরের মত, মেক আপ সেক্টর টা অবহেলিত। ভালো লুক বা গেট আপ দেবার মত ভালো মেক আপ আর্টিস্টের অনেক অভাব।

এই কাজের জন্য বাজেটও খুব কম থাকে। বড় বাজেটের কাজের সময় মাঝে মধ্যে, দেশের বাইরে থেকে মেক আপ আর্টিস্ট আনা হয়।কিন্তু আমাদের রেগুলার কাজে, গড় পড়তা বাজেট আর গোঁজামিল দিয়েই কোন মত শেষ করা হয়। এভাবেই চলছে।

কিন্তু একজন রাইটার যখন মনের মাধুরী মিশিয়ে, লুক বর্ননা করে একটি চরিত্র লেখেন, ডিরেক্টরও সেই অভিনয়টা দাবী করেন, তখনই বিপত্তিটা শুরু হয়। চরিত্রের বিশ্বাস যোগ্য মেক আপ বা গেট আপ না হলে তো,অভিনয় টা ঠিক ঠাক হবে না….দর্শকও তখন চরিত্র বা গল্পটাকে গ্রহন করবে না। আমার পেটে চারুকলার বিদ্যা যোগ হবার কারনে, একটু ভিন্ন লুকের চরিত্র পেলেই,ডিরেক্টরের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে, মেক আপ ম্যানের সহকারী হয়ে, মোটামুটি ভাবে চরিত্রের লুকটা আদায় করে নেই।

অনলাইনের এই যুগে সঠিক কাজ করার লোকের চেয়ে, ভুল ধরার লোকের সংখ্যা কোটি গুন বেশী। যদিও আমার কথাটি কোন এক্সকিউজের জন্য বলছি না…..তারপরেও…আপনারা শুধু দর্শক হিসেবে একবার ভাবুন, বাইরের দেশের যে সকল কাজের সঙ্গে আমাদের কাজকে তুলনা করে, অধিকাংশ সময় ছুঁড়ে ফেলে দেন, খেয়াল করে দেখবেন, ওদের সাথে আমাদের বাজেটের পার্থক্য, টেকনিক্যাল পার্থক্য এবং
পেশাদ্বারিত্বের পার্থক্য কতটা!!

কতটা সীমাবদ্ধতার ভেতর দিয়ে আমরা কাজ করি, আপনারা অনেকেই সেটা ভাবতেও পারবেন না। তারপরেও আমরা আমাদের কাজ গুলো করে চলি ভালোবাসায় আর নেশায়…..ঐ যে কথায় আছে…..“নাই মামার চেয়ে, কানা মামা ভালো”। আপনারা সাথে থাকলে, দেখবেন… “একদিন আমরাও…….”

সূত্র: বিনোদন২৪.কম





web hit counter