Thursday , 1 December 2022
Home / খবর / ওমর সানি-মৌসুমীর ছেলের নাম বাদ রেখে ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

ওমর সানি-মৌসুমীর ছেলের নাম বাদ রেখে ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা


ঢাকা, ২০ মে – নিজে মালিক হলেও তারকা দম্পতি ওমর সানি ও মৌসুমীর ছেলে ফারদিন এহসানের স্বাধীনের নাম বাদ দিয়ে মামলা করেছে গুলশান থানা পুলিশ। স্বাধীনসহ আরও দুজন গুলশানের মনটানা লাউঞ্জ সিসা বারের মালিক বলে জানা গেছে।

বুধবার (১৯মে) রাতে গুলশান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান বলেন, ‘এ ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ১১ জনকে আসামি করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।’

সিসা বারের মালিকদের কেন আইনের আওতায় হলো না? এমন প্রশ্নে ওসি আবুল হাসান বলেন, ‘আমরা ঘটনাস্থলে যাদের পেয়েছি তাদেরই আসামি করা হয়েছে। মামলা হয়েছে, তদন্ত হবে। তদন্তে অন্যদের সংশ্লিষ্টতা পেলে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে। সে ক্ষেত্রে শুধু স্বাধীন নয়, অন্যরাও আসামি হতে পারে।’

এদিকে অভিযোগ ওঠার পর থেকে চিত্রনায়ক ওমর সানী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন।

তিনি বলছেন, ‘মনটানা লাউঞ্জ একটি খাবারের রেস্তোরাঁ। সেখানে সিসা কেউ চাইলে সরবরাহ করা হতো। অবৈধ কিছু সেখানে করাও হয়নি। কেননা আমাদের একটি সামাজিক অবস্থান আছে। আমার ছেলে ও তার বন্ধুদের মালিকানাধীন বারটি অবৈধ হলে গুলশানের আরো যে ৪০টি বার আছে সেগুলোও বন্ধ করে দিতে হবে।’

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর থেকে জানা গেছে, সিসায় মাদকের অস্তিত্ব আছে। এ কারণে এটি সেবন বা বেচাবিক্রিতে আইনগত কোনো বৈধতা নেই। কিন্তু কিছু সুবিধাভোগী বার-রেস্তোরাঁর মালিক নিজেদের ফায়দা লোটার জন্য হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন। রিটের সুরাহা না হওয়ায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এ ধরনের বারে অভিযান পরিচালনা করতে পারছে না। এই মাদক একসঙ্গে বেশ কয়েকজন বসে সেবন করতে পারে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৮ মে) রাতে গুলশানের আরএফ সেন্টারের ওই লাউঞ্জে অভিযান পরিচালনা করে গুলশান থানা পুলিশ। সেখান থেকে সিসা সেবনরত অবস্থায় ১১ জনকে আটক করা হয়। সেসময় সেখান থেকে দুই প্যাকেট সিসা ও সিসা সেবনের অন্যান্য উপকরণ উদ্ধার করা হয়।

এন এইচ, ২০ মে





web hit counter