Saturday , 24 July 2021
Home / খবর / আমাকে ‘আন্টি’ বলে তিরস্কার করেছে: প্রিয়ামনি

আমাকে ‘আন্টি’ বলে তিরস্কার করেছে: প্রিয়ামনি


হায়দ্রাবাদ, ১৭ জুন – দক্ষিণ ভারতের অভিনেত্রী প্রিয়ামনি। মডেলিংয়ের মাধ্যমে শোবিজ অঙ্গনে পা রাখলেও একজন অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করেছেন। তামিল, তেলেগু থেকে শুরু করে হিন্দি ভাষার চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন তিনি।

ক্যারিয়ারের শুরুতে বক্স অফিসে ব্যর্থ হন প্রিয়ামনি। তার অভিনীত চলচ্চিত্র বার বার ব্যবসায়ীকভাবে ব্যর্থ হলেও হাল ছাড়েননি তিনি। বরং ধীরচিত্তে নিজের লক্ষ্যে এগিয়ে যান এই অভিনেত্রী। সময়ের সঙ্গে অভিনয় গুণে দর্শক হৃদয়ে শক্ত জায়গা তৈরী করে নেন। স্বীকৃতি স্বরূপ লাভ করেন ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

নিজের স্বপ্ন বাস্তবে রূপ দিতে মানুষের কটূ কথা কম শুনতে হয়নি প্রিয়ামনিকে। এমনকি বডি শেমিংয়ের শিকারও হয়েছেন তিনি। সেই তিক্ত অভিজ্ঞতা জানিয়েছেন ভারতীয় একটি সংবাদমাধ‌্যমে। প্রিয়ামনি বলেন—‘‘আমার ওজন বেড়ে ৬৫ কেজি হয়েছিল। এখনকার চেয়ে আমাকে আরো বেশি বড় দেখাত। অধিকাংশ মানুষ আমাকে মোটা, বড়, আন্টি বলে তিরস্কার করেছে। কিন্তু তারাই এখন বলে, ‘তুমি এত শুকিয়েছো কেন, যখন মোটা ছিলে তখনই ভালো লাগত।’’

শরীরের রং নিয়েও ট্রলের শিকার হয়েছেন প্রিয়ামনি। এ বিষয়ে এই অভিনেত্রী বলেন—‘মানুষ যখন বলতো তুমি দেখতে কালো। আমি তখন বলেছি, আমার শরীরের রঙ কালো হলেই সমস‌্যা কী? এরপর কাউকেই কালো বলে ডাকবে না। কারণ কালো সুন্দর।’

তামিল ভাষার ‘কাঙ্গালাল কাইধু সেই’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রাঙ্গনে পা রাখেন প্রিয়ামনি। অভিষেক চলচ্চিত্রটি বক্স অফিসে ব্যর্থ হলে মালায়লাম ও তেলেগু ভাষার চলচ্চিত্রের দিকে ঝুঁকে পড়েন তিনি। ২০০৪ সালে ‘সাথিয়াম’ সিনেমার মাধ্যমে মালায়লাম ভাষার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে প্রিয়ামনির। তার অভিনীত ‘পেলিয়ানা কোথালো’ সিনেমাটি ২০০৬ সালে মুক্তি পায়। এ সিনেমাটি ব্যবসায়ীকভাবে সফল হয়। ২০১০ সালে ‘রাবণ’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক ঘটে প্রিয়ামনির। ২০০৭ সালে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন এই অভিনেত্রী।

‘দ্য ফ্যামিলি ম্যান টু’ ওয়েব সিরিজে অভিনয় করেছেন প্রিয়ামনি। সম্প্রতি ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম অ্যামাজন প্রাইমে মুক্তি পেয়েছে এটি। আলোচিত এই ওয়েব সিরিজে আরো অভিনয় করছেন মনোজ বাজপেয়ী, সামান্থা আক্কিনেনি প্রমুখ।

এন এইচ, ১৭ জুন

2021-06-17