Tuesday , 3 August 2021
Home / খবর / করণী সেনার পর এবার ক্ষত্রিয় মহাসভার ক্ষোভের মুখে অক্ষয়ের ‘পৃথ্বীরাজ’

করণী সেনার পর এবার ক্ষত্রিয় মহাসভার ক্ষোভের মুখে অক্ষয়ের ‘পৃথ্বীরাজ’


মুম্বাই, ১৯ জুন- ভারতের রাজনৈতিক দল করণী সেনার পর এবার অক্ষয়কুমারের ‘পৃথ্বীরাজ’ সিনেমার নাম পরিবর্তন নিয়ে দাবি তুলেছে অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা।

করণী সেনার বক্তব্য ছিল, মরাঠা সম্রাট পৃথ্বীরাজ চৌহানের পুরো নাম ব্যবহার করা হোক ছবির ক্ষেত্রে। নয়তো ছবির সেটে হামলা করা হবে বলে হুমকিও দেওয়া হয়েছিল। শুক্রবার চণ্ডীগড়ে অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় মহাসভা অক্ষয়ের কুশপুত্তলিকা পোড়ায়। তাদের দাবি, সিনেমার নাম রাখা হোক ‘হিন্দু সম্রাট পৃথ্বীরাজ চৌহান’। সেই দাবি আদায়ের জন্য ওই দল রাস্তায় বিক্ষোভ করে। অক্ষয়ের পাশাপাশি সিনেমাটির প্রযোজক আদিত্য চোপড়ার কুশপুত্তলিকাও পোড়ানো হয়।

পৌরাণিক বা ইতিহাস-নির্ভর সিনেমা নিয়ে কোনও রাজনৈতিক দলের এ জাতীয় আচরণ নতুন নয়। এর আগে করণী সেনা ‘পদ্মাবত’-এর সময়ে ছবির সেটে গিয়ে ভাঙচুর করেছিল। ছবির পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানাসালীকে শারীরিক নির্যাতনও করেছিলো।

‘যোধা আকবর’ সিনেমার সময়েও রাজনৈতিক দলগুলো বিক্ষোভ করেছিলো। তবে রাজনৈতিক দলগুলোর এ ধরনের আচরণের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত বলিউড থেকে জোরালো প্রতিবাদ উঠে আসেনি। ‘পৃথ্বীরাজ’-এর শুটিং এখনও বাকি। তবে নির্মাতারা রাজনৈতিক চাপে নাম বদল করেন কি না, সেটাই দেখার বিষয়।

এস সি/১৯ জুন

2021-06-19