Saturday , 24 July 2021
Home / খবর / পরীমনি ফেইসবুকে জানালেন কোথায় তার সমস্যা

পরীমনি ফেইসবুকে জানালেন কোথায় তার সমস্যা


ঢাকা, ২৪ জুন – নির্যাতন, ধর্ষণচেষ্টা এবং হত্যাচেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা করার পর বিভিন্ন গণমাধ্যম এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে উঠে আসা প্রশ্নের জবাব দিচ্ছেন পরীমনি। এ জন্য তিনি বরাবরের মতোই তার ফেইসবুক পেইজ ব্যবহার করছেন। তাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখরোচক বিভিন্ন সংবাদ দেখে অনেকটাই বিরক্ত বাংলা চলচ্চিত্রের হার্টথ্রব এই নায়িকা।

২৪ জুন বিকেলে পরীমনি ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেন: ‘সমস্যা হইলো- আমি মাইয়া লোক কিন্তু লুতুপুতু মাইয়া টাইপ আচরণ করি নাই আপনার সাথে, ঘইটা গেল সমস্যা! চিকন সুরে ভাইয়া ভাইয়া করি নাই আপনারে, বিশাল সমস্যা! কাজের ফাঁকে আলগা রসের পিরিতের আলাপ করি নাই, ব্যাস এই তো সমস্যা! কাজে মত প্রকাশের অধিকার দেখাইছি, তাতেই সমস্যা! আপানার চোক্ষের সামনে আরো পাঁচ-দশ জনের মতো না হারাইয়া যাইয়া দিন দিন ক্যারিযার বানাইতেছি, নাম কামাইতেছি… এইখানে হইয়া গেল সমস্যা! আপনি পরিচালক হইয়া ৫ বছরে একটা সিনেমা বানান, আর আমার এক বছরে পাঁচ সিনেমা রিলিজ হয়, আমার তো প্রচুর সমস্যা! আপনারে প্রযোজক বাগাইতে দিলাম না, ওরে সমস্যা! শুটিং সেটে উহ আহ করা দামরা ধইরা নগদে থাপড়াই, চরম সমস্যা! কোনো রকম চামচামি না নিয়া আপনার মুখের উপরে তিতা সত্য বইলা দেই, আমারই তো সমস্যা! তারপর তো বিড়ি খাওয়া, মদ খাওয়া, প্রেম করা, বিদেশে ইচ্ছা মতো ঘুরতে যাওয়া, শুয়োরের বাচ্চা-বালছাল বইলা গালিটালি দেওয়া, পিরিয়ড নিয়া কথা বলা এইগুলা তো আছেই! পাইছেন কই এইগুলা? আমিই তো দিছি। আপনাদের মন ভরে না কেন বলেন তো? টুপ কইরা কথায় কথায় চরিত্র হাতাইতে আসেন।’

সম্প্রতি পরীমনির বাসার ড্রইংরুমে মদের বোতল নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। এ প্রসঙ্গে পরীমনি লিখেছেন: ‘বাসার মধ্যে মদের খালি বোতলের শো-পিস দেইখা চরিত্র বুইঝা ফেলেন কেমনে বলেন তো? বাসায় যে জায়নামাজ, কোরআন, নামাজের ঘর আছে সেইটা কেন দেখতে পাইলেন না আপনে?’

লড়াইটা শুধু পরীমনির একার নয়। বিষয়টি বোঝার মতো জ্ঞান উদয় হোক- এই প্রত্যাশা জানিয়ে পরীমনি আরো লিখেছেন: ‘অন্যায়কে অন্যায় বলতে শিখেন! অপরাধীকে অপরাধী বলতে শিখেন। একটা ন্যায়ের জন্যে লড়াইয়ের সঙ্গে থাকেন। না পারলে এইবার অন্তত ব্যক্তিগত হিংসাত্মক আক্রমণ কইরেন না প্লিজ।’

গত ১৩ জুন পরীমনি অভিযোগ করেন বোট ক্লাবে গেলে ব্যবসায়ী নাসির ইউ মাহমুদ তাকে নির্যাতন, ধর্ষণচেষ্টা এবং হত্যার চেষ্টা করেছেন। তার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মামলা হলে পুলিশ অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করে।

এম এউ, ২৪ জুন

2021-06-25