Saturday , 24 July 2021
Home / খবর / তৃতীয় সন্তানের মা হচ্ছেন কারিনা

তৃতীয় সন্তানের মা হচ্ছেন কারিনা


মুম্বাই, ১০ জুলাই – গত ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় সন্তানের মা হয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী কারিনা কাপুর। এবার তিন নম্বর সন্তানের জন্ম দিতে চলেছেন নায়িকা। কী অবাক হচ্ছেন? ভাবছেন, দ্বিতীয় সন্তান জন্মানোর চার মাস পর কীভাবে তৃতীয় সন্তান হয়? আসলে এই সন্তান গর্ভজাত নয়, কলমজাত।

কারিনার কাপুরের লেখা একটি বই প্রকাশ পাবে খুব শিগগিরই। নাম ‘প্রেগন্যান্সি বাইবেল’। এই বইকেই নিজের তৃতীয় সন্তান হিসেবে উল্লেখ করেছেন অভিনেত্রী নিজেই। সেই বই হাতে নিয়ে ছবি তুলে তা পোস্টও করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়।

দ্বিতীয়বার মা হওয়ার সময় অসহ্য যন্ত্রণার মধ্যে দিয়ে কাটাতে হয়েছে কারিনাকে। আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে যোগাসনের একটি ছবি শেয়ার করে কারিনা লিখেছিলেন, ‘ডেলিভারির পরের চার মাস অসহ্য যন্ত্রণার মধ্যে দিন কাটিয়েছি। ভীষণই ক্লান্ত থাকতাম। কোনো কিছুই নতুন করে শুরু করতে ইচ্ছে করত না।’

অন্তঃসত্ত্বা অবস্থার সে সব অনুভুতির কথাই বিস্তারিত লেখা আছে কারিনার বইতে। মা হওয়ার সময় মেয়েদের শারিরীক ও মানসিক পরিবর্তন আসে। তেমনটা হয়েছিল কারিনার ক্ষেত্রেও। তার মা হওয়ার এই জার্নির শারিরীক ও মানসিক পরিবর্তনের কথাই শেয়ার করেছেন নায়িকা।

কারিনা লেখেন, ‘গর্ভবতী অবস্থায় বেশ কিছুদিন কাজ করতে ইচ্ছে করলেও এমন অনেকদিন গেছে যে, বিছানা ছেড়ে উঠতেই পারিনি।’ এই বই লিখতে সাহায্য করেছেন স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকেরা। স্বাভাবিকভাবেই এই নতুন বই নিয়ে উচ্ছ্বসিত হওয়ার পাশাপাশি কারিনা নার্ভাসও।

মেয়েদের প্রেগন্যান্সির সময় থেকেই যে সব পরিবর্তন আসে তাদের মধ্যে অন্যতম ওজন বৃদ্ধি। কারিনারও বেশ অনেকটাই ওজন বেড়েছিল সন্তান জন্মানোর সময়। তবে নিয়িমিত যোগাসন করে অনেকটাই মেদ ঝরিয়ে ফেলেছেন তিনি।

ক্যারিয়ারের মধ্য গগনে থাকাকালীন মাতৃত্বের সিদ্ধান্ত নেন কারিনা। ব্রেক নেন কিছুদিনের। তিনি প্রমাণ করেন, মাতৃত্ব কখনো সাফল্যের পথে বাধা নয়। তবে প্রথম সন্তান তৈমুরের থেকে দ্বিতীয় সন্তানের ক্ষেত্রে বেশি সচেতন সাইফ-কারিনা। এখন প্রকাশ্যে আনেনি তাদের দ্বিতীয় সন্তানকে।

এছাড়া সন্তানের নামও এখনো ঠিক করেন তারকা দম্পতি। তবে শোনা যাচ্ছে, ছোট ছেলেকে নাকি তারা ‘জেহ’ বলে ডাকে। এই ল্যাটিন শব্দটির অর্থ নীল পালকের পাখি। এটাই দ্বিতীয় ছেলের নাম কি না, তা অবশ্য জানাননি সাইফ বা কারিনা।

এস সি/ ১০ জুলাই

2021-07-10